শিরোনাম:
কেরানীগঞ্জ উপশাখা কমিটির ফুলেল শুভেচছায় সিক্ত (বিসিডিএস) নব-নির্বাচিত কমিটি কেরাণীগঞ্জে নবনির্মিত স্কুল ভবন উদ্বোধন করলেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত দেশী সিগারেট উৎপাদনকারীদের প্রস্তাবনা বাস্তবায়ন হলে রাজস্ব আদায় বাড়বে ৩৮ শতাংশ কেরানীগঞ্জে সেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজনে কেক কেটে  বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালিত কেরানীগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর ১০২তম জন্মদিন পালিত মোংলায় চোরাই গম জব্দ, আটক ১ কেরানীগঞ্জে একদিনে পাশাপাশি পাঁচ বাড়িতে গনচুরি কেরানীগঞ্জ অন্যায়ের প্রতিবাদ তরুণ যুব সংঘের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। সুবর্ণচর ভূঁইয়ার হাট আগুনে পুড়ে ছাঁই, কোটি টাকার ক্ষতি।
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৯:১৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি
সারাদেশে জরুরি ভিত্তিতে সংবাদকর্মী নেওয়া হচ্ছে ★★★ আপনার চার পাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা আমাদের জানান। সত্য প্রকাশে দূর্বার পথচলা ★★★ দৈনিক ফেমাস বার্তা পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন ★★★ www.famousbarta.com. Email: dailyfamousbarta@gma­il.com ★★★ মোবাইলঃ- 01976444656, 09696444656

দেশী সিগারেট উৎপাদনকারীদের প্রস্তাবনা বাস্তবায়ন হলে রাজস্ব আদায় বাড়বে ৩৮ শতাংশ

জনপ্রিয় সংবাদ / ৫৩ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশিত: বুধবার, ২৩ মার্চ, ২০২২

দেশী সিগারেট উৎপাদনকারীদের প্রস্তাবনা বাস্তবায়ন হলে রাজস্ব আদায় বাড়বে ৩৮ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বাজেটে নিম্নস্তরে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সিগারেটের মধ্যে প্রতি শলাকার দাম ১ টাকা পার্থক্য করে মূল্য নির্ধারণ অথবা নিম্নস্তর শুধুমাত্র দেশীয় ব্র্যান্ডের জন্য সংরক্ষণের দাবী দেশীয় সিগারেট মালিক সমিতির। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ৪২তম পরামর্শক কমিটির সভায় মঙ্গলবার বিকেলে হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টাল এ প্রস্তাব তুলে ধরা হয়। অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর )চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম উপস্থিত ছিলেন।
সভায় দেশীয় সিগারেট মালিক সমিতির পক্ষ থেকে প্রস্তাব করা হয়, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে নিম্নস্তরে মূল্য বিভাজন সংক্রান্ত পদক্ষেপ অনুযায়ী দেশি ও আন্তর্জাতিক সিগারেটের প্রতি শলাকায় দামের মধ্যে ন্যূনতম ১ টাকা পার্থক্য করে বর্তমান প্রেক্ষাপটে প্রতি ১০ শলাকার মূল্য দেশী সিগারেট ৩৯ টাকা ও আন্তর্জাতিক সিগারেট ৪৯ টাকায় দাম নির্ধারণ করা প্রয়োজন। অথবা ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের অনুমোদিত বাজেট অনুযায়ী বর্তমানে বাজারে নিম্নস্তরে বিদেশি কোম্পানির বাজারজাতকৃত আন্তর্জাতিক সিগারেটের ব্র্যান্ড মধ্যস্তরে উন্নীত করে নিম্নস্তর শুধু দেশী কোম্পানির দেশী সিগারেটের জন্য সংরক্ষিত রাখা। নিম্নস্তরে বিদেশী কোম্পানী ৯০ শতাংশ একচেটিয়া বাজার দখল করে রেয়েছে যেখানে দেশীয় কোম্পানীর ১০ শতাংশ। এতে দেশীয় কোম্পানীগুলো হুমকির মুখে।
প্রস্তাব দু’টির যেকোনো একটি বাস্তবায়িত হলে, সরকারের রাজস্ব আদায় বর্তমান বছরের তুলনায় ২২ থেকে ৩৮ শতাংশ পর্যন্ত বাড়বে বলেও দাবি করা হয়।
দেশীয় সিগারেট উৎপাদনকারী ২৪ টি কোম্পানীর শীষ প্রতিনিধিরা এ বৈঠকে অংশ নেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগ থেকে আরও খবর