শিরোনাম:
কেরানীগঞ্জ উপশাখা কমিটির ফুলেল শুভেচছায় সিক্ত (বিসিডিএস) নব-নির্বাচিত কমিটি কেরাণীগঞ্জে নবনির্মিত স্কুল ভবন উদ্বোধন করলেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত দেশী সিগারেট উৎপাদনকারীদের প্রস্তাবনা বাস্তবায়ন হলে রাজস্ব আদায় বাড়বে ৩৮ শতাংশ কেরানীগঞ্জে সেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজনে কেক কেটে  বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালিত কেরানীগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর ১০২তম জন্মদিন পালিত মোংলায় চোরাই গম জব্দ, আটক ১ কেরানীগঞ্জে একদিনে পাশাপাশি পাঁচ বাড়িতে গনচুরি কেরানীগঞ্জ অন্যায়ের প্রতিবাদ তরুণ যুব সংঘের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। সুবর্ণচর ভূঁইয়ার হাট আগুনে পুড়ে ছাঁই, কোটি টাকার ক্ষতি।
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৮:৫১ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি
সারাদেশে জরুরি ভিত্তিতে সংবাদকর্মী নেওয়া হচ্ছে ★★★ আপনার চার পাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা আমাদের জানান। সত্য প্রকাশে দূর্বার পথচলা ★★★ দৈনিক ফেমাস বার্তা পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন ★★★ www.famousbarta.com. Email: dailyfamousbarta@gma­il.com ★★★ মোবাইলঃ- 01976444656, 09696444656

পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ বৃদ্ধি পেয়েছে ব্যাপক হারে মূল্য

জনপ্রিয় সংবাদ / ৩১৩ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশিত: বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :

গত বছরের ন্যায় এবারও দেশে আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে পেঁয়াজ। ভারত আকস্মিকভাবে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করায় দেশের বাজারে  বৃদ্ধি পেয়েছে। ইতিমধ্যেই ৩০-৪০ টাকার পেঁয়াজ ১০০ টাকার উপরে পৌঁছেছে।

গতবারও না জানিয়ে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করেছিল ভারত। এবারও একইভাবে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করেছে ভারত। আগে থেকে না জানিয়ে হঠাৎ করে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়ায় উদ্বেগ জানিয়ে ভারতকে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ। চিঠিতে আবার পেঁয়াজ রফতানি চালু করতে ভারত সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনে গতকাল মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এ চিঠি দেয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ওই চিঠিতে বলা হয়, ১৪ সেপ্টেম্বর ভারতের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয় আকস্মিক পেঁয়াজ রফতানির ঘোষণায় যে পরিবর্তন এনেছে, তাতে গভীর উদ্বেগ জানাচ্ছে বাংলাদেশ। এটা বাংলাদেশের বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যের সরবরাহকে সরাসরি প্রভাবিত করছে। চিঠিতে চলতি বছরের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ-ভারতের বাণিজ্য সচিব পর্যায়ের আলোচনার কথা উল্লেখ করে বলা হয়েছে- ওই বৈঠকে বাংলাদেশ ভারতকে অনুরোধ জানিয়েছিল ভারত যেন বাংলাদেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যের রফতানিতে বিধিনিষেধ আরোপ না করে। আর যদি কোনো বিধিনিষেধ আরোপ করতে হয়, তাহলে বাংলাদেশকে যেন আগেই অবগত করা হয়। এছাড়া গত অক্টোবরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরেও এ সংক্রান্ত আলোচনা হয়েছিল বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

চিঠিতে আরও বলা হয়, সর্বশেষ ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত সরকারের পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের ঘোষণায় বন্ধুপ্রতিম দুই দেশের মধ্যে ২০১৯ ও ২০২০ সালে হওয়া আলোচনা এবং পারস্পরিক বোঝাপড়ায় গুরুত্ব দেয়া হয়নি।

এদিকে গত মঙ্গলবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেন, ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যদি এ ধরনের পরিবর্তন করে থাকে তা বন্ধুপ্রতিম দেশ হিসেবে আগে জানিয়ে দেবে- এ রকম একটা বিষয় আছে। পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের আগে বাংলাদেশকে জানানোর কথা থাকলেও জানায়নি ভারত। তবে আবার রফতানির বিষয়ে দিল্লির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা তাদের খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে এ সিদ্ধান্তটি প্রত্যাহারের জন্য অনুরোধ জানিয়েছি এবং আমরা প্রত্যাশা করছি ভালো একটা ফলাফল পাব।

গত সোমবার পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন আমদানিকারকরা। তারা বলছেন, এলসি খোলার পরও পণ্য না পাওয়ার বিষয়টি দুর্ভাগ্যজনক। বাজারে সংকট দেখা দিতে পারে পেঁয়াজের। তবে পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক হওয়ার আশা করছে বাংলাদেশের বন্দর কর্তৃপক্ষ। সোমবার ভারতের শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক চিঠিতে বলা হয়েছে, সব ধরনের পেঁয়াজ রফতানি পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। এক্ষেত্রে ট্রানজিশনাল এগ্রিমেন্ট প্রযোজ্য নয় বলেও ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগ থেকে আরও খবর